GST Admission Result 2021

গুচ্ছ পদ্ধতিতে আবেদন পেমেন্ট প্রক্রিয়া ২০২০-২১

জিএসটির আবেদন প্রক্রিয়ার সাথে শিক্ষার্থীদের মনে অনেকগুলো প্রশ্ন উঠে এসেছে। তাই প্রশ্নের সমাধান নিয়ে আমরা এসেছি। অনেক শিক্ষার্থী জানতে চেয়েছে জিএসটির প্রাথমিক আবেদন পেমেন্ট বিষয় নিয়ে। যারা এখনো এ বিষয়ে জানে না তাদের জন্য এই পোস্টটি খুবই সহযোগী হবে বলে মনে করি। তাই যারা জিএসটির প্রাথমিক আবেদনের পেমেন্ট মেথড বা পেমেন্ট এর বিষয়ে জানতে চাচ্ছে তারা আমাদের ওয়েবসাইটের নিচের দিকে গেলে জানতে পারবে।

প্রতিবছরের ন্যায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে এ বছরে ব্যতিক্রমভাবে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশের বেশ কিছু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত আকারে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষার্থীরা একটি আবেদনের মাধ্যমে তাদের এসএসসি এবং এইচএসসি ফলাফল এবং চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে নির্দিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির সুযোগ পাবে। একজন শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্যঝুঁকি এবং আর্থিক দিক বিবেচনা করে ব্যতিক্রমী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। দেশের সার্বিক পরিস্থিতি অবশ্যই শিক্ষার্থীদের জন্য একটি আশীর্বাদস্বরূপ ব্যবস্থা। তাই যারা জিএসটি প্রাথমিক আবেদন সম্পন্ন করতে চাও করতে চান তারা আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া বিভিন্ন পোস্ট অনুসারে আবেদন করতে পারবেন। আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে গেলে অনেকের মনে একটি প্রশ্ন আসে। যে এখন কিভাবে পেমেন্ট করব? কারণ বাংলাদেশের অনলাইন ভর্তি প্রক্রিয়া বিভিন্ন ধরনের আবেদন প্রক্রিয়া টাকা পেমেন্ট করতে হয়। সে পেমেন্ট সম্পর্কিত যাবতীয় প্রশ্ন শিক্ষার্থীদের মনে থেকেই থাকে। তাই সে সকল প্রশ্নের উত্তর আমরা নিচে দিয়ে দিয়েছি।

১) জিএসটির প্রাথমিক আবেদনের পেমেন্ট করতে হবে কত টাকা?

জিএসটির প্রাথমিক আবেদনের পেমেন্ট করতে হবে না। প্রাথমিক আবেদনের শিক্ষার্থীদের এইচএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষার যাবতীয় তথ্য, ফোন নাম্বার এবং ওটিপি প্রদানের মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

২)আবেদন প্রক্রিয়া ছবি বা সিগনেচার লাগবে কিনা?

জিএসটির প্রাথমিক আবেদন প্রক্রিয়ায় কোনো ছবি বা সিগনেচার প্রদান করা লাগবে না। সে ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের শুধু তথ্য প্রদান করলেই হবে। আর তথ্যের ক্ষেত্রে এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার পাশের বছর, রোল নম্বর, শিক্ষাবোর্ড ইত্যাদি উল্লেখ করতে হবে। আর এগুলো অবশ্যই নির্ভুলভাবে প্রদান করতে হবে। তাছাড়া একজন শিক্ষার্থীর সাথে জিএসটি কর্তৃপক্ষ কোনো রকম ভাবে যোগাযোগ করতে পারবে না।

৩) পেমেন্ট তাহলে কখন কিভাবে করতে হবে?

একজন শিক্ষার্থী যখন প্রাথমিক আবেদনের পর চূড়ান্ত আবেদনের জন্য নির্বাচিত হবে। তখন তাকে ইউনিটভিত্তিক আবার আবেদন করতে হবে। অনলাইনের মাধ্যমে অবশ্যই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে। প্রতি ইউনিটের আবেদন ফি এক্ষেত্রে 500 টাকা। এই টাকা শিক্ষার্থীদের আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর প্রদান করতে হবে। অন্যথায় তার আবেদন প্রক্রিয়া বাতিল হবে। আবেদন প্রক্রিয়ার পর শিক্ষার্থীদের যে 500 টাকা পেমেন্ট করতে হবে তা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে করতে হবে। আর তা শিক্ষার্থীরা রকেট, নগদ, বিকাশের মাধ্যমে করতে পারবে। শিক্ষার্থীরা টাকা প্রদানের পর তাদের একটি কনফার্মেশন নাম্বার আসবে। সেই কনফার্মেশন নাম্বার দিয়ে তাদের কনফার্মেশন স্লিপ ডাউনলোড করে নিতে হবে অনলাইন থেকে।

তাহলে জিএসটি ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের সকল তথ্য আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া আছে। আপনাদের যার যে ধরনের তথ্য প্রয়োজন তারা সেই ধরনের তথ্য আমাদের এখান থেকে দেখে নিতে পারবেন। পরীক্ষার পরবর্তী সকল ধরনের তথ্য হালনাগাদ আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে পোস্ট করব।

Exit mobile version